মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

কী সেবা কীভাবে পাবেন

 

উপজেলা ভূমি অফিসে সর্বসাধারণের সেবার জন্য নিমণবর্ণিত কার্যক্রম সম্পন্ন করা হয়ে থাকে

 

১। সরকারের রাজস্বাদি( ভূমি উন্নয়ন কর) আদায় সংক্রামত্ম কার্যক্রমসম্পন্ন করা হয়ে থাকে:

 

ক) জমির মালিক কর্তৃক সরকারের রাজস্বাদি (ভূমি উন্নয়ন কর) পরিশোধের সুবিধার্থে জমির    বেকর্ডপত্রাদি হাল নাগাদ করণ।

খ) রেকর্ডপত্র হাল নাগাদ করণে প্রক্রিয়া হিসাবে নামজারী ও জমাখারিজ কার্যক্রম গ্রহণ।

গ) বি,এস জরিপের রেকর্ড সংরÿণ এবং জনগণের প্রয়োজনে প্রদর্শণ।

২। নামজারী ও জমাখারিজ মোকদ্দমা অনুমোদন কার্যক্রমঃ

 

ক) নামজারী ও জমাখারিজ প্রার্থীর আবদন পত্র গ্রহন।

খ) সংশিস্নষ্ট ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তার মাধ্যমে তদমত্ম করিয়ে প্রসত্মাব সংগ্রহ করে

গ) সংশিস্নষ্ট পÿগণকে নোটিশের মাধ্যমে শুনানী গ্রহন ও মোকদ্দমা অনুমোদন।

ঘ) অনূমোদিত নামজারী জমাখারিজ মোকদ্দমার খতিয়ান সরবরাহের জন্য ডি,সি,আর এর মাধ্যমে ফি আদায় করন।

৩। খাস জমি ব্যবস্থাপনা, রক্ষণাবেক্ষণ ও বন্দোবসত্ম প্রদানঃ

ক) সরকারের কৃর্ষ ও অকৃষি জমি সংরÿণ ও রক্ষণাবেক্ষণ।

ক) বন্দোবসত্ম যোগ্য কৃষি জমি ভূমিহীন কৃষক ও ছিন্নমূল ব্যক্তিগণের মধ্যে বন্দোবসত্ম  প্রদান।

৪। খাস কৃষি জমি ভূমিহীন কৃষকদের মধ্যে বন্দোবসত্ম প্রক্রিয়াঃ

 

ক) উপজেলার অধীন প্রতিটি ইউনিয়ন ভিত্তিক ভূমিহীন কৃষক ও ছিন্নমূল ব্যক্তি অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের নিকট হতে খাস কৃষি জমি বন্দোবসত্ম পাওয়ার দরখাসত্ম গ্রহন।

খ) উপজেলা ভূমিহীন কৃষক বাছাই কমিটির মাধ্যমে যোগ্য ভূমিহীন কৃষক ছিন্নমুল ব্যক্তি ও অসচ্ছল মুক্তি যোদ্ধা বাছাই করন।

গ) বাছাইকৃত আবেদনপত্রের ভিত্তিতে ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তার মাধ্যমে তদমত্ম পূর্বক বন্দোবসত্ম নথি সৃজন।

ঘ) বন্দোবসত্ম প্রসত্মাব জেলায় অনুমোদনের জন্য প্রেরণ।

ঙ) অনুমোদন প্রাপ্তির পর বন্দোবসত্ম গ্রহীতার নামে জোত সৃজন, কবুলিয়ত সম্পাদনও রেজিষ্ট্রিকরণ ও নামজারী জমাখারিজ প্রক্রিয়া গ্রহন।

চ) বন্দোবসত্ম গ্রহীতা বরাবরে বন্দোবসত্ম প্রাপ্ত জমির দখল হসত্মামত্মর করণ।

৫। অর্পিত অনিবাসী সম্পত্তি রক্ষণাবেক্ষণ ও লীজকৃত জমির বন্দোবসত্ম সংরÿণ ঃ

 

ক) অর্পিত অনিবাসী সম্পত্তি শুমারী তালিকা হতে অর্পিত অনিবাসী সম্পত্তি ঘোষনায় আসায় সম্পত্তি অবমুক্ত করণ সংক্রামত্ম কার্যক্রম গ্রহন।

খ) অর্পিত সম্পত্তি লীজ প্রদান ও লীজকৃত অর্পিত সম্পত্তি মোকদ্দমা নবায়ন ও লীজমানি আদায় কার্যক্রম গ্রহন।

৬) রেন্ট সার্টিফিকেট মোকদ্দমা পরিচালনাঃ

ক) সকারের রাজস্বাদি( ভূমি উন্নয়ন কর) খেলাপী কর দাতাদের বিরেম্নদেধ ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা কর্তৃক দায়েরকৃত অভিযোগের ভিত্তিতে রেন্ট সার্টিফিকেট মামলা দায়ের।

খ) খাতকের প্রতি নোটিশ জারীর মাধ্যমে খেলাপী কর আদায়ের ব্যবস্থা গ্রহন।

৭) জমির মালিকানার দাবীতে নামজারী ও জমাখারিজ মোকদ্দমা সংক্রান্ত বিরোধ নিষ্পত্তিঃ

 

ক) নামজারী ও জমাখারিজ মোকদ্দমা অনুমোদন জনিত কারণে সৃষ্ট বিরোধ নিষ্পত্তির জন্য নামজারী ও জমাখারিজ মোকদ্দমা পুনঃ বিবেচনা (রিভিউ) করণ।

খ) অনুরম্নপ মোকদ্দমা পুনঃ বিবেচনার জন্য সংক্ষুব্দ ব্যক্তির নিকট হতে আবেদনপত্র গ্রহন।

গ) প্রাপ্ত আবদন পত্রের ভিত্তিতে বিবিধ মোকদ্দমা রুজু ক্রমে তদমেত্মর জন্য সংশিস্নষ্ট ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তার নিকট প্রেরণ।

ঘ) নোটিশের মাধ্যমে শুনানী গ্রহন শেষে আইনানুগভাবে মামলা নিষ্পত্তি করন।

৮। সীমানা চিহ্নিত করণের জন্য পরিমাপ কার্যক্রম গ্রহন ঃ

 

ক) সরকারী সম্পত্তির সাথে ব্যক্তি মালিকানা সম্পত্তির সীমানা সংক্রামত্ম বিরোধ নিষ্পত্তির জন্য বিরোধীয় ভূমি পরিমাপ কার্যক্রম।

এক নজরে আখাউড়া উপজেলা ভূমি অফিস এর সার্বিক কার্যক্রমঃ

 

উপজেলা ভূমি অফিসে সর্বসাধারণের সেবার জন্য নিমণবর্ণিত কার্যক্রম সম্পন্ন করা হয়ে থাকে

 

১। সকারের রাজস্বাদি( ভূমি উন্নয়ন কর) আদায় সংক্রামত্ম কার্যক্রমসম্পন্ন করা হয়ে থাকে ঃ

 

ক) জমির মালিক কর্তৃক সরকারের রাজস্বাদি (ভূমি উন্নয়ন কর) পরিশোধের সুবিধার্থে জমির    বেকর্ডপত্রাদি হাল নাগাদ করণ।

খ) রেকর্ডপত্র হাল নাগাদ করণে প্রক্রিয়া হিসাবে নামজারী ও জমাখারিজ কার্যক্রম গ্রহণ।

গ) বি,এস জরিপের রেকর্ড সংরক্ষণ এবং জনগণের প্রয়োজনে প্রদর্শণ।

২। নামজারী ও জমাখারিজ মোকদ্দমা অনুমোদন কার্যক্রমঃ

 

ক) নামজারী ও জমাখারিজ প্রার্থীর আবদন পত্র গ্রহন।

খ) সংশিস্নষ্ট ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তার মাধ্যমে তদমত্ম করিয়ে প্রসত্মাব সংগ্রহ করে

গ) সংশিস্নষ্ট পক্ষগণকে নোটিশের মাধ্যমে শুনানী গ্রহন ও মোকদ্দমা অনুমোদন।

ঘ) অনূমোদিত নামজারী জমাখারিজ মোকদ্দমার খতিয়ান সরবরাহের জন্য ডি,সি,আর এর মাধ্যমে ফি আদায় করন।

৩। খাস জমি ব্যবস্থাপনা, রক্ষণাবেক্ষণ ও বন্দোবসত্ম প্রদানঃ

ক) সরকারের কৃ©র্ষ ও অকৃষি জমি সংরক্ষণ ও রক্ষণাবেক্ষণ

ক) বন্দোবসত্ম যোগ্য কৃষি জমি ভূমিহীন কৃষক ও ছিন্নমূল ব্যক্তিগণের মধ্যে বন্দোবসত্ম  প্রদান।

৪। খাস কৃষি জমি ভূমিহীন কৃষকদের মধ্যে বন্দোবসত্ম প্রক্রিয়াঃ

 

ক) উপজেলার অধীন প্রতিটি ইউনিয়ন ভিত্তিক ভূমিহীন কৃষক ও ছিন্নমূল ব্যক্তি অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের নিকট হতে খাস কৃষি জমি বন্দোবসত্ম পাওয়ার দরখাসত্ম গ্রহন।

খ) উপজেলা ভূমিহীন কৃষক বাছাই কমিটির মাধ্যমে যোগ্য ভূমিহীন কৃষক ছিন্নমুল ব্যক্তি ও অসচ্ছল মুক্তি যোদ্ধা বাছাই করন।

গ) বাছাইকৃত আবেদনপত্রের ভিত্তিতে ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তার মাধ্যমে তদমত্ম পূর্বক বন্দোবসত্ম নথি সৃজন।

ঘ) বন্দোবসত্ম প্রসত্মাব জেলায় অনুমোদনের জন্য প্রেরণ।

ঙ) অনুমোদন প্রাপ্তির পর বন্দোবসত্ম গ্রহীতার নামে জোত সৃজন, কবুলিয়ত সম্পাদনও রেজিষ্ট্রিকরণ ও নামজারী জমাখারিজ প্রক্রিয়া গ্রহন।

চ) বন্দোবসত্ম গ্রহীতা বরাবরে বন্দোবসত্ম প্রাপ্ত জমির দখল হসত্মামত্মর করণ।

৫। অর্পিত অনিবাসী সম্পত্তি রÿণাবেÿণ ও লীজকৃত জমির বন্দোবসত্ম সংরÿণ ঃ

 

ক) অর্পিত অনিবাসী সম্পত্তি শুমারী তালিকা হতে অর্পিত অনিবাসী সম্পত্তি ঘোষনায় আসায় সম্পত্তি অবমুক্ত করণ সংক্রামত্ম কার্যক্রম গ্রহন।

খ) অর্পিত সম্পত্তি লীজ প্রদান ও লীজকৃত অর্পিত সম্পত্তি মোকদ্দমা নবায়ন ও লীজমানি আদায় কার্যক্রম গ্রহন।

৬) রেন্ট সার্টিফিকেট মোকদ্দমা পরিচালনাঃ

ক) সকারের রাজস্বাদি( ভূমি উন্নয়ন কর) খেলাপী কর দাতাদের বিরেম্নদেধ ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা কর্তৃক দায়েরকৃত অভিযোগের ভিত্তিতে রেন্ট সার্টিফিকেট মামলা দায়ের।

খ) খাতকের প্রতি নোটিশ জারীর মাধ্যমে খেলাপী কর আদায়ের ব্যবস্থা গ্রহন।

৭) জমির মালিকানার দাবীতে নামজারী ও জমাখারিজ মোকদ্দমা সংক্রামত্ম বিরোধ নিষ্পত্তিঃ

 

ক) নামজারী ও জমাখারিজ মোকদ্দমা অনুমোদন জনিত কারণে সৃষ্ট বিরোধ নিষ্পত্তির জন্য নামজারী ও জমাখারিজ মোকদ্দমা পুনঃ বিবেচনা (রিভিউ) করণ।

খ) অনুরম্নপ মোকদ্দমা পুনঃ বিবেচনার জন্য সংক্ষুব্দ ব্যক্তির নিকট হতে আবেদনপত্র গ্রহন।

গ) প্রাপ্ত আবদন পত্রের ভিত্তিতে বিবিধ মোকদ্দমা রম্নজু ক্রমে তদন্তের জন্য সংশিস্নষ্ট ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তার নিকট প্রেরণ।

ঘ) নোটিশের মাধ্যমে শুনানী গ্রহন শেষে আইনানুগভাবে মামলা নিষ্পত্তি করন।

৮। সীমানা চিহ্নিত করণের জন্য পরিমাপ কার্যক্রম গ্রহন ঃ

 

ক) সরকারী সম্পত্তির সাথে ব্যক্তি মালিকানা সম্পত্তির সীমানা সংক্রামত্ম বিরোধ নিষ্পত্তির জন্য বিরোধীয় ভূমি পরিমাপ কার্যক্রম।